বয়ফ্রেন্ড খুঁজছেন মিমি চক্রবর্তী!

0
পশ্চিবঙ্গের জনপ্রিয় নির্মাতা রাজ চক্রবর্তীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠতা ছিল নায়িকা-সংসদ সদস্য মিমি চক্রবর্তীর। রাজ তাকে বিয়েও করতে চেয়েছিলেন। মিমি রাজি ছিলেন না। মিমির কাছে সে সময় বিয়ের চেয়ে ক্যারিয়ারই ছিল মুখ্য। যে কারণে রাজ চক্রবর্তীর সঙ্গে বন্ধুত্ব নষ্ট হয় টলিউডের জনপ্রিয় এই অভিনেত্রীর। এরপর শুভশ্রীকে বিয়ে করেন রাজ। এর কিছু দিন পর প্রযোজক শ্রীকান্ত মোহতার সঙ্গে মিমির সখ্যতা গড়ে ওঠে বলে টলিউডে দীর্ঘ দিনের গুঞ্জন ছিল। সে সম্পর্ক বেশ কিছু দিন চললেও শ্রীকান্ত জেলে চলে যান। এরপর তুরস্কের মিলি গুলহান নামের এক প্রযোজকের সঙ্গে মিমির বন্ধুত্বের খবর ছড়িয়ে পড়ে। গুঞ্জন উঠে, তারা প্রেম করছেন। বছর কয়েক আগে পরিচালক বিরসা দাশগুপ্তের একটি সিনেমা শুটিংয়ে তুরস্কে গিয়েছিলেন মিমি। সেই শুটিংয়ে স্থানীয় ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে ছিলেন মিলি। আর সেখানেই মিমির সঙ্গে তার আলাপ হয়। অভিনেত্রী নুসরাত জাহানের বিয়ের যে আয়োজন তুরস্কে হয়েছিল তার দায়িত্বেও ছিলেন মিলি। গতবারের দীপাবলিও দিল্লিতে মিলির সঙ্গে কাটিয়েছেন মিমি। ‘মিমি চক্রবর্তী ক্রিয়েশন’র প্রথম গানের শুট হয়েছিল তুরস্কতেই। এত কিছুর পরেও এই সম্পর্ক নিয়মিত নয়। যার ফলে মিমি-মিলির প্রেম তুরস্ক থেকে সেভাবে জমে ওঠেনি। মিলি শুধু বিদেশিই নন, থাকেন তুরস্কে। সমস্যা সেখানেই। এখন মিমি কী বলছেন? ‘আমি লং ডিসট্যান্স রিলেশনশিপে বিশ্বাস করি না। মিলির সঙ্গে বিয়ের প্রশ্নই ওঠে না। আমি পার্টিতে যাই না। শুটিং থেকে বাড়ি আর আমার রাজনীতির জায়গা- এটাই আমার রুটিন। এই রুটিনে কেউ বুঝতে পারছে না আমি কার সঙ্গে ডেট করছি? কোথায় যাচ্ছি? তার মধ্যে আমি একা। তাই মানুষ ধরে নিচ্ছে আমার অমুকের সঙ্গে প্রেম, বিয়ে। আমি বিয়ে করলে সকলকে জানিয়ে, সব মিডিয়াকে ডেকেই বিয়ে করব- বললেন মিমি চক্রবর্তী। তিনি আরও বলেন, আগে একটা বয়ফ্রেন্ড তো হোক। তাকে দেখি। তার সঙ্গে ঘুরি। কিছুটা সময় কাটাই। তারপর তো বিয়ে!

মতামত